** বৈরি আবহাওয়ায় পদ্মায় তীব্র স্রোত এবং বন্যার কারণে পলি পড়ে ফেরি চলাচলের চ্যানেল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় গত এক সপ্তাহ ধরে কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌ-রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ফেরিগুলো পদ্মার শাখা থেকে মূল পদ্মায় প্রবেশের পথে চ্যানেল ডুবোচরে মাঝে মধ্যেই আটকে থাকতো। এক সপ্তাহে ৮টিরও বেশি ফেরি দীর্ঘসময় ডুবোচরে আটকা পড়ে। যাত্রীরা দক্ষিণাঞ্চল থেকে বিভিন্ন যানবাহনে এসে লঞ্চ, স্পীডবোট ও ট্রলারে পদ্মা পাড় হলেও পণ্যবাহী ট্রাক চালকরা পড়েছেন ভোগান্তিতে। ফেরি না চললে বিকল্প হিসেবে যাত্রীরা লঞ্চ, স্পীডবোট ও ট্রলারে পদ্মা পাড় হন।

বিআইডব্লিউটিএ ড্রেজিং সংশ্লিষ্টরা জানান, পদ্মা সেতুর কথা বিবেচনায় ফেরি চলাচল বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ। বর্তমানে নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে ড্রেজিং চলছে। তবে নদীতে অস্বাভাবিক পলি ও ময়লা-আবর্জনা থাকায় ড্রেজিং কাজ স্বাভাবিকভাবে করা সম্ভব হচ্ছে না। বিআডব্লিউটিএ’র পক্ষ থেকে ১৩টি ড্রেজার দিয়ে খনন কাজ চলামান রয়েছে। দু’তিন দিনের মধ্যে চলাচল স্বাভাবিক করা সম্ভব হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *