এমএইচ১৭-র ১৯৬ আরোহীর মৃতদেহ উদ্ধার

বিদেশ ডেস্ক: মালয়েশিয়ার ভূপাতিত বিমান থেকে ১৯৬টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের জরুরি বিভাগের কর্মীরা। তবে রবিবার তারা জানায় যে ইউক্রেনের রাশিয়াপন্থী সশস্ত্র বিদ্রোহীরা এসব লাশ অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গেছে। বার্তা সংস্থা এপি’র সাংবাদিকরা শনিবার দেখতে পান যে বিদ্রোহীরা ব্যাগভর্তি এসব মৃতদেহ ট্রাকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে। রবিবারও এপি’র সাংবাদিকরা দেখতে পান যে ইউক্রেনের জরুরি বিভাগের কর্মীরা এবং বিদ্রোহীরা বিমানটি পতিত হওয়ার স্থানটি থেকে মৃতদেশের ছিন্নভিন্ন অংশ খুঁজে বেড়াচ্ছেন। এমএইচ১৭ বিমানটিতে ২৯৮ জন আরোহী ছিল। বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের ডোনেটস্কে রাশিয়াপন্থী বিদ্রোহীদের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় বিমানটি ভূপাতিত হলে তাদের সবাই নিহত হয়।

এখন পর্যন্ত সেখানে পর্যবেক্ষকদের যেতে বাধা দিয়ে যাচ্ছে রাশিয়াপন্থী বিদ্রোহীরা। পশ্চিমা দেশগুলো এর তীব্র সমালোচনা করছে। তারা পর্যবেক্ষকদের ঘটনাস্থলে যাবার অনুমতি দিতে রাশিয়ার ওপর চাপ সৃষ্টি করে চলেছে।

আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকরা রবিবার আবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। আমস্টারডাম থেকে কুয়ালালামপুর যাওয়ার যাওয়ার পথে বোয়িং৭৭৭ বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর রুশপন্থী বিদ্রোহীরা এখন মৃতদেহ এবং বিমানের বিভিন্ন অংশ অন্যত্র নিয়ে যাচ্ছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।

এমনকি যেখানে বিমানটির ধ্বংসাবশেষ পড়েছে সেই স্থানটি কর্ডন করেও রাখা হয়নি। এদিকে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্স প্রকাশিত যাত্রীদের তালিকা থেকে দেখা যায় যে বিমানটিতে নেদারল্যান্ডের যাত্রীই ছিল ১৯৩ জন। এছাড়া ৪৩ জন মালয়েশীয় (১৫ জন ক্রুসহ), ২৭ জন অস্ট্রেলিয়ান, ১২ জন ইন্দোনেশীয়, ১০ জন বৃটিশ, চার জন করে জার্মান ও বেলিজিয়ান, ৩ জন ফিলিপিনো  এবং কানাডা ও নিউজিল্যান্ডের একজন করে যাত্রী ছিল।